শুক্রবার, ০২ অক্টোবার ২০২০ ,

প্রকাশ :২৩ জুলাই ২০২০ , ০৮:২২ PM

নারী লোভী ভন্ড সাধুর গল্প নিয়ে শিমুল সরকারের ঈদের শর্টফিল্ম ‘কামসাধন’

single image

ছবি: সময়ের বাংলা

আমাদের সমাজে মজিদ পীরেরা আজও বহমান স্রোতের ধারায় টিকে আছে। মাঝে মাঝে একটু আধটু রুপ পাল্টায় শুধু। কখনও ধর্ম, কখনও পীরের ছদ্মবেশ, কখনওবা সন্নাসব্রত পালনের নামে কামনা, লালসার জাল বিস্তার করে। এমনই গল্পের ছোট সিনেমা 'কামসাধন' লকডাউনের বন্দী জীবনে তৈরি করেছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় নির্মাতা শিমুল সরকার।  

গল্পে দুটি অংশ দেখানো হয়েছে। ছদ্মবেশে নারীভোগী এক ভন্ড সন্নাসীর পাশাপাশি আমাদের সমাজে বখে যাওয়া টিন এজ ছেলেদের ধর্ষণ প্রবৃত্তি। মাত্র ৪ টি চরিত্র নিয়ে গড়ে উঠেছে কামসাধনের গল্প। চলচ্চিত্রের প্রধান চরিত্র সাধু। এই চরিত্র নির্মাণের জন্য তিন বছর ধরে চুল দাঁড়ি কাটেননি অভিনেতা মঞ্চকর্মী নজরুল ইসলাম তোফা। তিনি বলেন নাট্যকার শিমুল সরকার সেই বিশ্ববিদ্যালয় জীবন থেকেই আমার নাট্যগুরু। 

দেশের অনেক বড় বড় তারকাদের না নিয়ে আমাকে নিয়ে যখন তিনি এমন একটা স্বপ্নের চরিত্র নির্মাণের ভাবনা ভাবেন তখন তার জন্য যে কোনো ত্যাগ আমার জন্য ফরজ হয়ে যায় আসলে। অন্য তিনটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন দেবী পান্ডে, সিয়াম আহমেদ খাঁ ও টিপু সুলতান। দেবী পান্ডের জন্য এই কাজটি প্রথম। কলেজ পড়ুয়া দেবী মঞ্চে, স্কুল কলেজে টুকটাক কাজ করলেও ক্যামেরার সামনে প্রথম দাঁড়ালেন শিমুল সরকারের মাধ্যমে।  

নির্মাতা শিমুল সরকার জানান তোফা ভাইকে কথা দিয়েছিলাম এই গল্পটা তাকে নিয়ে করবো। গল্প ভাবনাটাও তারই ছিল। চিত্রনাট্য করেছি আমি। এবারের কাজটা গল্পের প্রথম পার্ট এবং বলা যায় এক্সপেরিমেন্টাল কাজ। ২য় ধাপে এর ব্যপ্তি হবে দীর্ঘ। রাজশাহীর বাঘা এবং পুঠিয়াতে চিত্রধারন শেষে এখন সম্পাদনার কাজ চলছে। আগামী কোরবানির ইদের দিন রাত ৯ টা থেকে অনলাইন ইউটিউব চ্যানেল লাভ টিভিতে কামসাধন দেখা যাবে বলে পরিচালক নিশ্চিত করেছেন। 

লেখকঃ  

নজরুল ইসলাম তোফা, টিভি ও মঞ্চ অভিনেতা, চিত্রশিল্পী, সাংবাদিক, কলামিষ্ট এবং প্রভাষক

এই বিভাগের আরো খবর ::

Image

নামাজের সময়সূচী

সূর্যোদয় ভোর ৫ : ৪০ টা
ফজর ভোর ৬ : ০০ টা
যোহর দুপুর ১: ০০ টা
আছর বিকাল ৪ : ৩০ টা
মাগরিব সন্ধা ৬ : ৩০ টা
এশা রাত ৮ : ১৫ টা
সূর্যাস্ত সন্ধ্যা ৬ : ০০

অনলাইন জরিপ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘সিটি নির্বাচনে নিশ্চিত পরাজয় জেনেই বিএনপি নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করছে।’ আপনি কি তা-ই মনে করেন?