শুক্রবার, ২২ জানুয়ারী ২০২১ ,

প্রকাশ :১১ নভেম্বার ২০১৯ , ০৬:৪৬ PM

আশুলিয়ায় স্বর্ণ ও টাকা লুটের অভিযোগে গ্রেফতার ৭

single image

সাভারের আশুলিয়ায় এক জুয়েলারী ব্যবসায়ীর পাঁচ ভরি স্বর্ণ ও নগদ টাকা লুটের অভিযোগে ৭ জনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা জেলা উত্তর গোয়েন্দা পুলিশ। 

রবিবার (১০ নভেম্বর) রাতে আশুলিয়ার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটকের পর সোমবার ডাকাতির মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে তাদের আদালতে প্রেরণ করা হয়। 

আটকৃতরা  হলেন: বরিশাল জেলার আগৈলঝড়া থানার নাগিরপার গ্রামের মৃত প্রভুদান সরকারের ছেলে পলাশ সরকার (২৬), বগুড়া জেলার শাহজাহানপুর থানার রহিমাবাদ গ্রামের মৃত হারুনুর রশিদের ছেলে মামুন (৩৩), হবিগঞ্জ জেলার চুনারঘাট থানার দুধপাতিল গ্রামের আব্দুল কাইয়ুমের ছেলে জহিরুল ইসলাম সানী (২৬),ঢাকা জেলার ধামরাইয়ের মৃত রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে জাকির হোসেন (৩০), আশুলিয়া থানার ডেন্ডাবর গ্রামের মৃত দেলোয়ার হোসেনের ছেলে জামান(৩১), বাগেরহাট জেলার কচুয়া থানার গজারিয়া গ্রামের হাবিবুর রহমান মৃধার ছেলে নাসির উদ্দিন মৃধা (২৭) ও মানিকগঞ্জ জেলার দৌলতপুর থানার শামসুল হকের ছেলে জহিরুল ইসলাম ওরফে জাহাদ আলী (২৫)। 

গোয়েন্দা পুলিশ জানায়, গত ৩ নভেম্বর রাতে আশুলিয়ার বাইপাইল নামাবাজার এলাকার ফাল্গুণী জুয়েলারী'র ব্যবসায়ী গৌরাঙ্গ দোকান বন্ধ করে ৫ ভরি স্বর্ণ ও নগদ ২ লাখ ৭০ হাজার টাকা নিয়ে বাড়ির উদ্দেশে রওনা হয়। এসময় পথিমধ্যে একদল দুর্বৃত্ত তার গতিরোধ করে তাকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে কাছে থাকা স্বর্ণ ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয়। পরে ৮-১০ টি ককটেল ফাটিয়ে ডাকাতরা পালানোর সময় এলাকায় আতংক সৃষ্টি করে। এঘটনার সাত দিন পর ১০ নভেম্বর রাতে আশুলিয়ার বিভিন্ন স্থানে অভিযানে চালিয়ে সাত জনকে আটক করা হয়। 

ঢাকা জেলার উত্তর গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক (ওসি) আবুল বাশার জানান, গ্রেফতার ব্যক্তিরা সংঘবদ্ধ ভাবে আশুলিয়ার বিভিন্ন স্থানে ডাকাতি করে আসছিল। সোমবার আসামিদের আদালতে প্রেরণ করা হলে আসামিরা ডাকাতির কথা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয়।

এই বিভাগের আরো খবর ::

Image

নামাজের সময়সূচী

সূর্যোদয় ভোর ৫ : ৪০ টা
ফজর ভোর ৬ : ০০ টা
যোহর দুপুর ১: ০০ টা
আছর বিকাল ৪ : ৩০ টা
মাগরিব সন্ধা ৬ : ৩০ টা
এশা রাত ৮ : ১৫ টা
সূর্যাস্ত সন্ধ্যা ৬ : ০০

অনলাইন জরিপ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘সিটি নির্বাচনে নিশ্চিত পরাজয় জেনেই বিএনপি নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করছে।’ আপনি কি তা-ই মনে করেন?